বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ০৩:৫৩ অপরাহ্ন

ঘোষণা -:
নিউজ ৭১ অনলাইন ২০১১সাল থেকে নিয়মিত প্রকাশ হচ্ছে।।গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালযয়ে আবেদিত। আবেদিত নিবন্ধন সিরিয়াল নং ৯৩, নিউজ৭১অনলাইন সংক্রান্ত কোন প্রশ্ন থাকলে মোবাইল ঃ- ০১৭১৪২৭৭৬৮,০১৭১০-৯৫৯৮৯৫ অথবা  [email protected] ই-মেইল এ যোগাযোগ করতে পারেন

ad 02



সবাইকে কাঁদিয়ে চলে যাচ্ছে ওসি জামাল উদ্দিন মীর

সবাইকে কাঁদিয়ে চলে যাচ্ছে ওসি জামাল উদ্দিন মীর



মোঃ ইব্রাহিম হোসেনঃ- রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার জনপ্রিয় অফিসার ইনচার্জ জনাব জামাল উদ্দিন মীর সবাইকে কাঁদিয়ে বদলি জনিত কারনে রাজধানী কদমতলী থানায় ২২ জানুয়ারি ২০১৯ রোজ মঙ্গলবার অফিসার ইনচার্জ হিসেবে যোগদান করতে যাচ্ছে।

১৯ জানুয়ারি ২০১৯ রোজ শনিবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের এক অফিস আদেশে এ বদলী করা হয়।

বদলী আদেশ শোনার পর মোহাম্মদপুরের সর্বস্তরের জনগণ ও থানায় কর্মরত সকল সদস্য চোখের পানি ফেলে নিরবে কাঁদতে থাকে। এযেন এক হৃদয়বিদারক পরিস্থিতি। এখানেই একজন সফল পুলিশ কর্মকর্তার পরিচয় পাওয়া যায়।

ওসি জামাল উদ্দিন মীর মোহাম্মদপুর থানায় প্রায় সাড়ে তিন বছর কর্মরত থাকা অবস্থায় সামাজিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে জন-বান্ধব মোহাম্মদপুর এলাকায় নিয়মিত উঠান বৈঠক করে বিভিন্ন সমস্যার সমাধান, মাদক নিয়ন্ত্রণ, দ্রুত সেবা দেয়া, মানুষের বিপদে তাৎক্ষণিক ছুটে যাওয়া, সন্ত্রাস-জঙ্গি দমন, ইভটিজিং, অজ্ঞানপার্টি, মলমপার্টি, পেশাদার অপরাধী চক্র, বিট পুলিশের কর্মকর্তাগণ কমিউনিটি পুলিশিং কমিটিসহ বিভিন্ন সামাজিক নেতৃবৃন্দের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে সংশ্লিষ্ট এলাকার আইনশৃঙ্খলা রক্ষার চেষ্টা করেন। নিজ নিজ এলাকার প্রতিটি বস্তি ও মেসের তালিকা তৈরী করে এবং সেখানে অবস্থানরত ভাসমান লোকদের সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রতিনিয়ত পরিদর্শন করে শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে মতবিনিময় করা’সহ অপরাধ নিয়ন্ত্রণে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ এবং সেগুলো কার্যকর করেন। তার দায়িত্ব পালনকালে মাদক, সন্ত্রাস, ছিনতাইসহ অপরাধ দমনের একাধিক সফলতার প্রমান রেখেছেন। তিনি  মোহাম্মদপুরে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান গুলোতে নিরাপত্তা নিশ্চিত করে ব্যবসার জন্য নিরাপদ জোন করে তুলেছেন। চাঁদাবাজ সন্ত্রাস সেখানে দাঁড়াতে পারেনি।

তিনি মোহাম্মদপুরে জঙ্গি, সন্ত্রাস, মাদক, চাদাবাজ, ছিনতাইকারী ও ডাকাত চক্রকে হটিয়ে পুলিশী আদিপত্য কায়েম করতে সক্ষম হয়েছেন। মোহাম্মদপুরে মাদক সম্রাটদের একের পর এক গ্রেফতার ও মামলা দিয়ে জারী করেছিলেন মাদকের বিরুদ্ধে পুলিশী জিরো টলারেন্স। যা সর্ব মহলে পুলিশকে দিয়েছিল সফল পুলিশের খেতাব।

ওসি জামাল উদ্দিন মীর বিভিন্ন কার্যক্রমের বিশেষ অবদানের জন্য ডিএমপি হেডকোয়ার্টার্স থেকে বারবার পুরষ্কৃত করেছেন।

তিনি পুলিশি দায়িত্বের পাশাপাশি সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজও করেছেন। গরীব, দুঃখী, অসহায়, পঙ্গু, বিধবাদেরকেও বিভিন্নভাবে আর্থিক সহযোগীতা করেছেন তিনি।

ওসি জামাল উদ্দিন মীর শত ব্যস্ততার মাঝেও সকলের সঙ্গে হাসিখুশি ব্যবহার করেছেন। রাজনৈতিক, সুশীল সমাজ সকলের সঙ্গে ছিলো তার সুসস্পর্ক। ওসি জামাল উদ্দিন মীরের সঙ্গে সাংবাদিকদের সম্পর্ক ছিলো বন্ধুত্বপূর্ন ।

বাংলাদেশ পুলিশের গর্ব রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার জনপ্রিয় অফিসার ইনচার্জ জনাব জামাল উদ্দিন মীর বলেন, মোহাম্মদপুরবাসী হয়তো একদিন আমায় ভুলে যাবে। কিন্তু আমি ভুলবো না। ভালোলাগা আর ভালবাসার এই বন্ধন আমি সারাজীবন মরে রাখবো।

তিনি আরও বলেন, মোহাম্মদপুর থানায় আমার সফলতার পিছনে অন্নতম ভূমিকা রেখেছে মোহাম্মদপুরের সর্বস্তরের মানুষ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন



ad03






– প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্যোগ বিষয়ক ই-বুক –

নিউজ ৭১ অনলাইন ২০১১সাল থেকে নিয়মিত প্রকাশ হচ্ছে।। আবেদিত নিবন্ধন সিরিয়াল নং ৯৩
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Don`t copy text!