মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারী ২০১৯, ০৪:১৩ পূর্বাহ্ন

ঘোষণা -:
নিউজ ৭১ অনলাইন ২০১১সাল থেকে নিয়মিত প্রকাশ হচ্ছে।।গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালযয়ে আবেদিত। আবেদিত নিবন্ধন সিরিয়াল নং ৯৩, নিউজ৭১অনলাইন সংক্রান্ত কোন প্রশ্ন থাকলে মোবাইল ঃ- ০১৭১৪২৭৭৬৮,০১৭১০-৯৫৯৮৯৫ অথবা  [email protected] ই-মেইল এ যোগাযোগ করতে পারেন

ad 02



যে সুবিধা পেলেন বাণিজ্যিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ ১৭৮ ব্যবসায়ী?

যে সুবিধা পেলেন বাণিজ্যিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ ১৭৮ ব্যবসায়ী?

সিআইপি কার্ড পাচ্ছেন ১৩৭ ব্যবসায়ী



পণ্য রপ্তানিতে অবদান রাখায় ১৩৭ ব্যবসায়ীকে বাণিজ্যিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি (সিআইপি) হিসেবে কার্ড দিয়েছে সরকার। এছাড়া ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের ৪১ পরিচালককেও দেয়া হয়েছে এই মর্যাদা।দুই ধরনের সিআইপি মিলিয়ে ২০১৬ সালের জন্য মোট ১৭৮ জনের হাতে সিআইপি কার্ড তুলে দিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) যৌথভাবে এই সিআইপি কার্ড দিয়েছে।মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর কারওয়ান বাজারের টিসিবি ভবন মিলনায়তনে সিআইপি কার্ড প্রদান অনুষ্ঠানটি হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

কারা পেলেন সিআইপি কার্ড? কাঁচা পাট রপ্তানিতে হাসান আহমেদ, নুরুল ইসলাম ও সেলিম রেজা; পাটপণ্য রপ্তানিতে নাজমুল হক, জাহিদ মিয়া, মুশতাক হোসেন, মাহমুদুল হক, আবুল বাসার খাঁন, ফজলুর রহমান ও শেখ ফারুক হোসেন সিআইপি কার্ড পেয়েছেন।চামড়াজাত পণ্য রপ্তানিতে মোহাম্মদ সায়ফুল ইসলাম, জয়নাল আবেদীন মজুমদার, শেখ মোমিন উদ্দিন ও মোহাম্মদ নাজমুল হাসান; হিমায়িত খাদ্য রপ্তানিতে মেহেদী হাসান, মো. মুছা মিয়া, সৈয়দ আবু আসফার, এস এম আবুল হোসেন, গাজী দেলোয়ার, মাসুদ পারভেজ, দোদুল কুমার দত্ত, তৌহিদুর রহমান ও হাবিব উল্ল্যাহ খান এবং চা রপ্তানিতে আহমেদ কামরুল ইসলাম সিআইপি কার্ড পেয়েছেন। ওভেন পোশাক রপ্তানিতে আহসান কবির খান, সৈয়দা শারমিন হোসেন, মুজিবুর রহমান, আরশাদ জামাল, মিরান আলী, আজিজুল ইসলাম, মুস্তাজিরুল শোভন ইসলাম, আক্কাচ উদ্দিন মোল্লা, ওয়াসিম রহমান, আবদুর রাজ্জাক সাত্তার, মোহাম্মদ সোহেল সাদাত, হুমায়ুন রশীদ, শরীফ জহীর, মোতালেব হোসেন, ইতেমাদ উদ দৌলাহ, সৈয়দ নুরুল ইসলাম ও ইনামুল হক খান সিআইপি কার্ড পেয়েছেন।কৃষিজাত পণ্য রপ্তানিতে গোবিন্দ চন্দ্র সাহা, ফারুক আহমেদ, এ এস এম রওশন হাবিব, গকুল চন্দ্র সাহা, মোহাম্মদ শাহাব উদ্দিন ও মোহাম্মদ মনসুর এবং কৃষি প্রক্রিয়াকরণ পণ্য রপ্তানিতে ওমর ফারুক, অঞ্জন চৌধুরী ও ইলিয়াস মৃধা সিআইপি কার্ড পেয়েছেন। হালকা প্রকৌশল পণ্য রপ্তানিতে মোহাম্মদ মিজানুর রহমান ভুঁইয়া; ওষুধ রপ্তানিতে স্যামুয়েল এস চৌধুরী, আব্দুল মুক্তাদির, নাজমুল হাসান; হস্তশিল্প রপ্তানিতে সফিকুল আলম সেলিম, তৌহিদ বিন আবদুস সালাম, বেলাল হোসেন ও আবু আলম চৌধুরী সিআইপি কার্ড পেয়েছেন।বিশেষায়িত টেক্সটাইল বা হোম টেক্সটাইল রপ্তানিতে মোহাম্মদ মোহসিন, এম শাহাদাত হোসেন ও আব্দুছ ছামাদ মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, নিট পোশাক রপ্তানিতে গোলাম মুস্তফা, ফকির আখতারুজ্জামান, গাওহার সিরাজ জামিল, মাসুদুজ্জামান, অহিদুল হক আসলাম সানী, অমল পোদ্দার, মহিউদ্দিন ফারুকী, নাবিল উদ দৌলাহ, নাজীম উদ্দিন আহমেদ, আসাদুল ইসলাম, আসিফ আশরাফ, কামাল উদ্দিন, আব্দুস সোবাহান, রিয়াজ উদ্দিন আল মামুন, প্রীতি পোদ্দার, মোহাম্মদ আলী তালুকদার, আব্দুল কাদির মোল্লা, মোখলেছুর রহমান, নাজিব মালেক চৌধুরী, রবিন রাজন সাখাওয়াত, এ এস এম কামরুল আহসান, আমির হামজা সরকার, কানিজ ফাতিমা, শফিকুল ইসলাম সরকার, বোরহান উদ্দিন, মোহাম্মদ সালমান, সাফিনা রহমান, রাকিবুল কবির, নুরুল আলম চৌধুরী, ফায়জুর রহমান ভূঞা, ইস্তেখাবুল হামিদ, অঞ্জন শেখর দাশ, শেখ এস এম মোস্তাফিজ, মোহাম্মদ আব্দুর রহিম, খলিলুর রহমান, শাহরিয়ার আহমেদ, এম মহিউদ্দিন চৌধুরী, এ বি এম সামসুদ্দিন, শামীম রেজা, মহিম হাসান ও সুলতানা জাহান সিআইপি কার্ড পেয়েছেন।সিরামিক পণ্য রপ্তানিতে এস এম ফারুকী হাসান, প্লাস্টিক পণ্য রপ্তানিতে বেঙ্গল প্লাস্টিকের জসিম উদ্দীন ও প্রাণ গ্রুপের রথীন্দ্রনাথ পাল, কাপড় রপ্তানিতে সাখাওয়াত হোসেন, আবদুল্লাহ আল মাহমুদ, আবদুর রাজ্জাক সাত্তার, শফিকুল ইসলাম সরকার, মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ জাবের, আব্দুর রাজ্জাক খাঁন এবং তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য রপ্তানিতে এ এস এম মহিউদ্দিন মোনেম সিআইপি কার্ড পেয়েছেন।এ ছাড়া আব্দুল মমিন মণ্ডল, মোহাম্মদ হাসান ইমাম, কানিজ ফাতেমা জেরিন, শামীম ইসলাম, রানা শফিউল্ল্যহ, আব্দুল আউয়াল, সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম, আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ জুবায়ের, মনির হোসেন, নিয়াজ রহিম, আসিফ এ চৌধুরী, বজলুর রহমান, গাজী আবুল হাসেম, মহুয়া দাশ গুপ্তা, আহমেদ কামরুল ইসলাম চৌধুরী, হেলাল মিয়া, আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ তালহা, নুর-ই ইয়াছমিন ফাতেমা, সালাউদ্দীন আলমগীর, তানভীর খান, কামাল উদ্দিন আহমেদ, মোহাম্মদ আনিসুর রাজ্জাক, সাজ্জাদুর রহমান মৃধা, এম মহিউদ্দিন চৌধুরী সিআইপি কার্ড পেয়েছেন।

দেশে একজন সিআইপিধারী কী কী সুবিধা পান?বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সিআইপি (রপ্তানি) কার্ডধারীরা বাংলাদেশ সচিবালয়ে প্রবেশের জন্য পাস ও গাড়ির স্টিকার পান।বিভিন্ন জাতীয় অনুষ্ঠান ও মিউনিসিপ্যাল করপোরেশন আয়োজিত নাগরিক সংবর্ধনায় আমন্ত্রণ পাবেন।ব্যবসা সংক্রান্ত ভ্রমণে বিমান, রেল, সড়ক ও জলপথে সরকারি যানবাহনে আসন সংরক্ষণ অগ্রাধিকার পান।একজন সিআইপি ব্যবসা সংক্রান্ত কাজে বিদেশে ভ্রমণের জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ভিসা প্রাপ্তির জন্য সংশ্লিষ্ট দূতাবাসকে উদ্দেশ করে লেটার অব ইন্ট্রোডাকশন ইস্যু করতে পারেন।সিআইপিরা তাদের স্ত্রী, পুত্র, কন্যা ও নিজের চিকিৎসার জন্য সরকারি হাসপাতালের কেবিন সুবিধা প্রাপ্তিতে অগ্রাধিকার পাবেন

বিমান বন্দরে ভিআইপি লাউঞ্জ-২ ব্যবহার সুবিধা পানসিআইপি কার্ডের মেয়াদ কত দিন থাকে?সিআইপি (রপ্তানি) এর মেয়াদ এক বছর। এক বছর পার হওয়ার পরে পরবর্তী বছরে সিআইপি ঘোষণা না হওয়া পর্যন্ত সিআইপি এর মেয়াদ বলবৎ থাকে।তবে সিআইপিদের (ট্রেড) মেয়াদ তাদের সংশ্লিষ্ট বাণিজ্য সংগঠনের পদে বহাল থাকা বা পরবর্তী সিআইপি ঘোষণা যেটি হয়, সে পর্যন্ত কার্যকর থাকবে।সিআইপি কার্ডের মেয়াদকাল উত্তীর্ণ হওয়ার পর এক সপ্তাহের মধ্যে তা বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে জমা দিতে হবে।সরকার যেকোনও সময় সিআইপি প্রত্যাহারের ক্ষমতা সংরক্ষণ করে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন



ad03






– প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্যোগ বিষয়ক ই-বুক –

নিউজ ৭১ অনলাইন ২০১১সাল থেকে নিয়মিত প্রকাশ হচ্ছে।। আবেদিত নিবন্ধন সিরিয়াল নং ৯৩
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Don`t copy text!